1. jahidul.savarnews24@gmail.com : News Editor : News Editor
  2. jahidul.moviebangla@gmail.com : Jahidul Islam : Jahidul Islam
  3. savarnews24@gmail.com : savarnews24 :
শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৩১ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা :
সাভার নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে সবাইকে স্বাগতম >> আপনার আশপাশের ঘটে যাওয়া ঘটনা জানাতে আমাদের মেইল করুন। ই-মেইল : savarnews24@gmail.com
শিরোনাম :

করোনায় ঢাবি’র আবাসিক হল থেকে তুলে দেয়া হচ্ছে গণরুম

  • সর্বশেষ আপডেট : শুক্রবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৪৫ বার পড়েছেন

করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল থেকে তুলে দেয়া হচ্ছে গণরুম।

আবাসন নিশ্চিতে সাবেক শিক্ষার্থীদের হলের সিট বাতিলের সিদ্ধান্ত।

আবাসন নিশ্চিতে সিদ্ধান্ত হয়েছে, সাবেক শিক্ষার্থীদের হল থেকে তাড়ানোর। সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীয়াশীল ছাত্র সংগঠনগুলোর সহযোগিতা চেয়েছে প্রশাসন। আর, বিশ্ববিদ্যালয় খোলার প্রস্তুতির অংশ হিসেবে এরই মধ্যে শুরু হয়েছে আবাসিক হলগুলোতে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা।

করোনা মহামারির মধ্যেই দেড় বছর পর খুলতে যাচ্ছে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। সপ্তাহখানেকের মধ্যেই খুলবে স্কুল কলেজ। আর সব ঠিক থাকলে অক্টোবরে পর্যায়ক্রমে খুলবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। ১৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় সিদ্ধান্ত হবে বিশ্ববিদ্যালয় ও হল খোলার তারিখ। উপাচার্য বলছেন, করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় ১৯টি আবাসিক হল থেকে গণরুম তুলে দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছেন তারা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘গণরুমে একসাথে অনেক শিক্ষার্থী বসবাস করে। যা করোনা পরিস্থিতির ঝুঁকি বাড়ায়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও সিদ্ধান্ত নিয়েছে গণরুম তুলে দেয়ার। এখন বিষয়টি সফলতা নির্ভর করে শিক্ষার্থী এবং ক্যাম্পাসের ছাত্র সংগঠনগুলোর ওপর।’

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের আহ্বানে সাড়া দিয়ে ক্রিয়াশীল ছাত্রসংগঠনগুলো বলছে, করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় গণরুম তুলে দিতে পারলে, শিক্ষার্থীদের জীবনমানে পরিবর্তন আনা যাবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘নিজেদের স্বার্থের কথা চিন্তা না করে যদি সবাই গণরুম উচ্ছেদে সহায়তা করে তাহলে এটি খুব সহজেই বাস্তবায়ন করা সম্ভব।’

ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ জানান, হল প্রশাসন যদি তাদের উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের সিট বরাদ্দ দেয় তশলে এটি খুব সহজেই বাস্তবায়ন সম্ভব।

এদিকে, বিশ্ববিদ্যালয় খোলার প্রস্তুতির অংশ হিসেবে এরই মধ্যে শুরু হয়েছে আবাসিক হলগুলোতে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার কাজ। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে প্রত্যেক হলের প্রবেশপথে বসানো হচ্ছে হাত ধোয়ার বেসিন। পরিষ্কার করা হচ্ছে টিভিরুম, ক্যান্টিন, ক্যাফেটেরিয়া আর রিডিং রুম।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. আবদুল বাছির জানান, শিক্ষার্থীরা যখন হলে প্রবেশ করবে তখন হাত ধুয়ে প্রবেশ করবে। এছাড়া হলের প্রবেশ ও বের হওয়ার স্থানগুলোতে লিকুইড সাবান রাখার পাশাপাশি স্যানিটাইজার রাখা হবে। আর বাইরে বের হলে শিক্ষার্থীদের যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা নিশ্চিতে বিশ্ববিদ্যালয় ও আবাসিক হল খোলার পর স্বাস্থ্যবিধি মানতে শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা চয়েছে প্রশাসন।

নিউজটি শেয়ার করুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সংক্রান্ত আরও খবর :