1. jahidul.savarnews24@gmail.com : News Editor : News Editor
  2. jahidul.moviebangla@gmail.com : Jahidul Islam : Jahidul Islam
  3. savarnews24@gmail.com : savarnews24 :
শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা :
সাভার নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে সবাইকে স্বাগতম >> আপনার আশপাশের ঘটে যাওয়া ঘটনা জানাতে আমাদের মেইল করুন। ই-মেইল : savarnews24@gmail.com
শিরোনাম :

স্কুল-কলেজ খোলার খবরে পোশাক বানানোর হিড়িক

  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১১৮ বার পড়েছেন

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারির ধাক্কা কিছুটা সামলে প্রায় দেড় বছর পর খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এ খবরে শিক্ষা সরঞ্জাম কেনার পাশাপাশি প্রাতিষ্ঠানিক পোশাক (স্কুল ড্রেস) বানাতে ব্যস্ত সময় যাচ্ছে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের। বিশেষ করে খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানগুলোর ড্রেস বানিয়ে থাকে, এমন দর্জি দোকান বা টেইলার্সে দেখা যাচ্ছে বেশি ব্যস্ততা।

সম্প্রতি শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ঘোষণা দেয়ার পর থেকে ঢাকাসহ দেশের মার্কেট ও দোকানগুলোতে এ চিত্র দেখা যাচ্ছে।

রাজধানীর নয়াপল্টনের সিটিহার্ট মার্কেটের নিচতলায় ছেলে ও মেয়েকে নিয়ে স্কুল ব্যাগ কিনতে এসেছেন এক বাবা। জাগো নিউজকে তিনি বলেন, আগে ড্রেস বানানো ছিল, সেগুলো দিয়েই চালিয়ে দেবো। তবে ব্যাগটা নতুন লাগবে। এছাড়া খাতা-কলম কিনতে হবে।

jagonews24

মতিঝিলের নটরডেম কলেজের পাশেই একটি দর্জির দোকানে জামার মাপ দিচ্ছেন ওই কলেজের শিক্ষার্থী অনিক। তার সঙ্গে কথা হয় জাগো নিউজের। অনিক বলেন, কলেজ বন্ধ থাকায় এতদিন গ্রামে ছিলাম। লেখাপড়ার কোনো চাপ ছিল না। দীর্ঘদিন ঘরে বসে থাকার কারণে স্বাস্থ্যের কিছুটা পরিবর্তন হয়েছে। পুরাতন জামা ছোট হয় বলে নতুন জামার অর্ডার দিচ্ছি।

জামা ছোট হয় বলে অনিকের মতোই আরও বেশ কয়েকজন নতুন জামার অর্ডার দিয়েছেন বলে জানান ওই টেইলার্সের মালিক শফিউল। তিনি বলেন, বেশ কিছু জামার অর্ডার পেয়েছি। নটরডেম, আরামবাগ প্রাথমিক বিদ্যালয়, আরামবাগ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের বেশ কিছু শিক্ষার্থীর নতুন স্কুল ড্রেসের অর্ডার আমার কাছে এসেছে।

jagonews24

মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের পাশেই আছে রেডিমেড স্কুল ড্রেসের দোকান। মতিঝিল আইডিয়াল, মতিঝিল কলোনি উচ্চ বিদ্যালয়, মতিঝিল বালক উচ্চ বিদ্যালয়, রাজারবাগ ও কমলাপুরের বেশ কয়েকটি স্কুলের ড্রেস রেডিমেড বিক্রি হয় এ দোকানে।

স্কুল ড্রেস বিক্রেতা সায়েম জাগো নিউজকে বলেন, আমরা শুধু স্কুল ড্রেসই বিক্রি করি। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে শুনে আমরাও দোকান খুলেছি। বেশ কিছু পোশাক বিক্রি করেছি।

করোনার কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এর মাঝে বেশ কয়েকবার খোলার কথা উঠলেও পরিস্থিতির কারণে বারবার পিছিয়ে দেওয়া হয় তারিখ। সবশেষ গত ৩ সেপ্টেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, ১২ সেপ্টেম্বর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে। আর এবারের ঘোষণার পর সার্বিকভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও শিক্ষার্থীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সংক্রান্ত আরও খবর :